শুরু হলো পেপার টেক এক্সপো ২০১৭

শুরু হলো কাগজ শিল্পকেন্দ্রিক পণ্যসম্ভারের তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা পেপার টেক এক্সপো ২০১৭। রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি, বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) বৃহস্পতিবার এ মেলার উদ্বোধন করেন বসুন্ধরা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সাফওয়ান সোবহান। মেলা চলবে শনিবার পর্যন্ত। মেলায় ছয়টি দেশ থেকে কাগজ শিল্পের সঙ্গে জড়িত ৬০টি প্রতিষ্ঠান তাদের পণ্য নিয়ে হাজির হয়েছে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সাফওয়ান সোবহান বলেন, এই মুহূর্তে কাগজের সামগ্রিক ব্যবহার আমাদের দেশে খুব বেশি নয়। তবে কাগজ শিল্প বাংলাদেশে ক্রমশ বিস্তার লাভ করছে। এ খাতে নিত্যনতুন সুযোগ তৈরি হচ্ছে। কাগজপণ্যের বাজার বড় হচ্ছে। সেক্ষেত্রে নতুন নতুন শিল্প কারখানা গড়ে তোলা এবং এ খাতে বিনিয়োগের বড় সুযোগ তৈরি হয়েছে। তিনি দেশ-বিদেশ থেকে মেলায় পণ্য নিয়ে হাজির হওয়া সকল প্রতিষ্ঠানের সাফল্য কামনা করেন। এরপর তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে মেলার উদ্বোধন ঘোষণা করেন এবং বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তৃতা করেন ভারতীয় প্রতিষ্ঠান আমার ইলাস্টোমার প্রা. লি. এর রাজিব কুমার, বসুন্ধরা গ্রুপের ডিএমডি মো. মোস্তাফিজুর রহমান ও এশিয়ান এক্সপো এন্ড কনফারেন্স- এর লিড ম্যানেজমেন্ট সৈয়দ মাহবুবুল আলম। এ সময় মেলায় অংশ নেওয়া বিভিন্ন শিল্পপ্রতিষ্ঠানের কর্ণধার ও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে ‘বাংলাদেশ পাল্প এন্ড পেপার’ নামে একটি ত্রৈমাসিক প্রকাশনারও উদ্বোধন করেন উপস্থিত অতিথিরা।
অনুষ্ঠানে রাজিব কুমার বলেন, আমি এখানে আমার প্রতিষ্ঠানের পণ্য প্রদর্শনের জন্য এসেছি। ভারত থেকে কাগজ শিল্পের সঙ্গে জড়িত অনেক ব্যবসায়ী এ মেলা উপলক্ষে ঢাকায় এসেছেন। কোন সন্দেহ নেই বাংলাদেশ কাগজ শিল্পের অন্যতম উদীয়মান বাজার হতে যাচ্ছে।
মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, দিন দিন বাংলাদেশের কাগজ শিল্প একটা শক্ত অবস্থানে যাচ্ছে। বর্তমানে ৮৫টির মতো কাগজ শিল্প প্রতিষ্ঠান সচল রয়েছে। কিছুদিন আগেও বাংলাদেশ কাগজ শিল্পে আমদানিনির্ভর দেশ ছিল। এখন কাগজপণ্য রপ্তানি হচ্ছে। শীঘ্রই এ খাতে রপ্তানিনির্ভর দেশ হবে বাংলাদেশ। এ ধরণের মেলা স্থানীয় উৎপাদনকারীদের নতুন নতুন প্রযুক্তি সম্পর্কে ওয়াকিবহাল হতে সাহায্য করবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
সৈয়দ মাহবুবুল আলম বলেন, কাগজশিল্প নিয়ে এটি আমাদের দ্বিতীয় আয়োজন। প্রথম আয়োজনটাও একই স্থানে হয়েছিল। এবার শুধু পেপার টেক নিয়ে আয়োজন। আগামীবার এই মেলা টিস্যুটেক ও কেমিকেল টেক সহকারে আসবে।
বাংলাদেশ পেপার মিলস এ্যাসোসিয়েশন (বিপিএমএ), এশিয়ান এক্সপো এন্ড কনফারেন্স এবং অনন্ত ইভেন্ট এন্ড এন্টারটেইনমেন্ট যৌথভাবে এ মেলার আয়োজন করেছে। মেলার স্পন্সর হিসেবে আছে বসুন্ধরা গ্রুপ, পেপার লিফ এবং আইবিএন। মিডিয়া পার্টনার হিসেবে আছে ডেইলি সান, কালের কণ্ঠ, বাংলানিউজ টুয়েন্টিফোর, নিউজ টুয়েন্টিফোর এবং বাংলাদেশ পাল্প এন্ড পেপার ডিরেক্টরি। – See more at: http://www.bd-pratidin.com/city-news/2017/05/04/228905#sthash.U5kezYtK.dpuf